২২ ক্যারেট সোনার দাম কত ২০২৩

২২ ক্যারেট সোনার দাম কত ২০২৩:স্বর্ণ হল একটি অত্যন্ত মূল্যবান মূল্যবান ধাতু যা গয়না তৈরি, মুদ্রা এবং বিনিয়োগ সহ বিভিন্ন উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়েছে। যাইহোক, খাঁটি সোনা তুলনামূলকভাবে নরম এবং নমনীয়, যা এটিকে কম টেকসই এবং স্ক্র্যাচ, ডেন্ট এবং অন্যান্য ধরণের ক্ষতির জন্য সংবেদনশীল করে তোলে। ২২ ক্যারেট সোনা গয়না তৈরি জনপ্রিয় , কারণ এটি ২৪ ক্যারেট সোনার চেয়ে কিছুটা কম ব্যয়বহুল কিন্তু এখনও খাঁটি সোনার উচ্চ অনুপাত নিয়ে গঠিত। ২২ ক্যারেট সোনা প্রায় ৯২% খাঁটি সোনা এবং ৮% অন্যান্য ধাতু যেমন তামা বা রূপা দিয়ে তৈরি।২২ ক্যারেট সোনা কিনতে বা বিক্রি করতে আগ্রহী এমন অনেক লোক প্রায়শই অনলাইনে এর দাম সার্চ করে থাকে । বর্তমানে বাজুসের নির্ধারিত ২২ ক্যারেট সোনার বারের দাম ৯৮ হাজার ৪৪৪ টাকা।

বাংলাদেশসহ যেসব দেশে সোনা পাওয়া যায় বা ব্যবহার করা হয়, সেখানে ২২ ক্যারেট সোনা সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। এর কারণ হল 24 ক্যারেট সোনা হল ১০০% খাঁটি সোনা এবং খুব নরম, এটি সহজেই ভাঙ্গা বা বাঁকানো যায় । গয়না তৈরির জন্য সোনাকে আরও টেকসই এবং ব্যবহারিক করতে, এটি অন্যান্য ধাতুর সাথে মিশ্রিত করা হয়। ২২ ক্যারেট সোনার সাথে অল্প পরিমাণে অন্যান্য ধাতু যেমন তামা বা রৌপ্য মিশিয়ে তৈরি করা হয়। এই প্রক্রিয়াটি সোনার স্থায়িত্ব এবং শক্তি বাড়ায় ।

২২ ক্যারেট সোনার দাম কত ?

২২ ক্যারেট সোনার দাম কত ২০২৩

সোনা একটি মূল্যবান সৌখিন জিনিস।অন্যসব মূল্যবান ধাতুর মত এর দাম সব সময় এক থাকে না।দেশের মুদ্রা এর ওপর ভির্ত্রি করে এর দাম ওঠা নামা করে। স্বর্ণ কে ক্যারেট পধতিতে ভাগ করা হয়ে থাকে।ক্যারেট বিবেচনায় এর দাম কম বেশি হয়ে থাকে।বাংলাদেশে স্বর্ণের দাম নিদিস্থ ভাবে বলা সম্ভব নয়,কারন কিছু অসাধু ব্যাবসায়ির বেশি দামে স্বর্ণ বিক্রি করে থাকে। বর্তমানে ২২ ক্যারেট ১ ভরি স্বর্ণ পাওয়া যায় ৯৮ হাজার ৪৪৪ টাকার মধ্যে।কোথাও ২২ ক্যারেট এক ভরি স্বর্ণের দাম ৯৮০০০ হাজার টাকা পাবেন। আবার কোথাও ১০০০০০ টাকারও দেখা মিলবে।

বর্তমানে ২২ ক্যারেট সোনার দাম ২০২৩ বাংলাদেশ

বাংলাদেশের বাজারে সোনার দাম প্রায়ই ওঠানামা করে । তবে বর্তমানে বাংলাদেশে ২২ ক্যারেট সোনার দাম ৯৫ হাজার থেকে ৯৮ হাজার টাকার মধ্যে। বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি প্রতি মাসে ২২ ক্যারেট সোনার দাম নির্ধারণ করে। গত বছরের ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশে ২২ ক্যারেট সোনার দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল ৯৮ হাজার ৪৪৪ টাকা।

স্বর্ণের আজকের দাম কত ২০২৩

বাহিরের দেশের তুলনাই বাংলাদেশে সোনার দাম অনেকটাই বেশি।সাথে সাথে বাংলাদেশের বিভিন্ন ধরনের স্বর্ণ পাওয়া যায়,তাদের আবার দামের পার্থক্য রয়েছে।বাংলাদেশের অনেক অসধু ব্যাবসাহিরা নিজের লাভের স্বার্থে স্বর্ণের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে।অন্য আরও একটি কারনে স্বর্ণের দাম বিরধি পেয়েছে,সেটি হল টাকার মান কমে যাওয়া। স্বর্ণের দাম ঠিকি আছে কিন্তু টাকার মান কমে গেছে যার ফলে স্বর্ণের দাম বিরধি পেয়েছে।তবে কারন যাই হক না কেন আমাদের স্বর্ণের সঠিক দাম জানা জরুরী।বাজুস নির্ধারিত ২২ ক্যারেটের ১ ভরি স্বর্ণের মূল্য ৯৮ হাজার ৪৪৪ টাকা ,২১ ক্যারেট ৯৩ হাজার ৯৫৪ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৮০ হাজার ৫৪০ টাকা ও সনাতন পদ্ধতির সোনা ৬৭ হাজার ১২৬ টাকা।

হলমার্ক করা ভালো মানের স্বর্ণের আজকের দাম

২২ ক্যারেট ৯৮ হাজার ৪৪৪ টাকা
২১ ক্যারেট ৯৩ হাজার ৯৫৪ টাকা
১৮ ক্যারেট ৮০ হাজার ৫৪০ টাকা
সনাতন পদ্ধতির সোনা ৬৭ হাজার ১২৬ টাকা।

পরিশেষ

সোনা কেনার আগে সতর্ক হওয়া উচিৎ সোনার সত্যতা যাচাই করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই পোস্টে, ২২ ক্যারেট সোনার দাম কত তা দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে । আশা করি হলমার্ক গোল্ডের বর্তমান বাজার দাম সম্পর্কে একটি ধারনা পেয়েছেন । সোনার দাম সব সময় উঠা নামা করতে থাকে । তাই দাম কিছুটা কম বেশি হবে স্বাভাবিক । আমাদের সাইটে বাংলাদেশের সকল পণ্যের বর্তমান বাজার দাম সম্পর্কে আপডেট দেয়া হয় । বর্তমান বাজারের আপডেট পেতে আমাদের সাথে থাকুন ।

সোনার দামের উপর কি প্রভাব ফেলে?

একটি দেশের অর্থনৈতিক মুর্দার ওপর ভিত্তি করে সোনার দামের পরিবর্তন দেখা দেয়।

কোন ধরনের সোনাকে সবথেকে উত্তম মানা হয়?

হলমার্ক যুক্ত 22 ক্যারেটের সোনাকে সবথেকে ভালো মানা হয়।

সোনায় খাদ সবথেকে কম থাকে কোন ক্যারেট এ?

২২ ক্যারেট এর স্বর্ণে খাদ কম থাকে।

বাংলাদেশে পুরনো বা সনাতনী স্বর্ণের দাম কত ?

বাংলাদেশে পুরনো বা সনাতনী স্বর্ণের দাম ৬৭ হাজার ১২৬ টাকা।

বাংলাদেশে কারা স্বর্ণের দান নির্ধারণ করেন?

বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি অর্থাৎ বাজুস।

আরও পড়ুন……

হলমার্ক সোনার দাম কত ২০২৩

এক ভরি স্বর্ণের দাম কত ২০২৩ । সেনার আজকের বাজার দাম

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top